1. [email protected] : 71sangbad 71sangbad : 71sangbad 71sangbad
  2. [email protected] : Admin :
  3. [email protected] : alokito71sangbad alokito71sangbad : alokito71sangbad alokito71sangbad
  4. [email protected] : Daily Alokito : Daily Alokito
  5. [email protected] : Frilix Group : Frilix Group
  6. [email protected] : Gazi Saidur : Gazi Saidur
  7. [email protected] : shihab :
মঙ্গলবার, ২০ এপ্রিল ২০২১, ০৩:০০ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
সুজানগরের সাগরকান্দির শ্যামসুন্দরপুরে বসতঘর সহ অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্ত গবাদি পশু কুষ্টিয়া মডেল থানা পুলিশের সফল অভিযানে ৫২ পিস ইয়াবা সহ রিয়েল মাহমুদ রকি গ্রেফতার খোকসায় ভেজাল গুড় তৈরির কারখানায় অভিযান ও আগুন সিলেটে করোনায় প্রান গেল আরো ৩ জনের কৃষকলীগের ৪৯ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে মাধবপুরে ইফতার সামগ্রী বিতরণ আ’লীগ প্রতিহিংসার রাজনীতিতে বিশ্বাসী নয়-শফিকুর রহমান চৌধুরী বিশ্বনাথে বিরোধপূর্ব ভূমিতে দুটি পক্ষকে সংঘর্ষের হাত থেকে রক্ষা করলো পুলিশ রাণীশংকৈলে দোকান খোলা রাখায় ৬ ব্যক্তিকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের জরিমানা সিলেটে করোনায় ৩ জনের মৃত্যু: আক্রান্ত ১৩০ জন মাধবপুরে অবৈধভাবে মাটি উত্তোলনের অপরাধে ইউপি সদস্যের জরিমানা

বিজ্ঞাপন

ফরিদপুর জেলা বাস মালিক গ্রুপের সাধারন সদস্যরা শান্তিপূর্ন পরিবেশ ফিরে পেতে চায়।

Reporter Name
  • প্রকাশিত: শনিবার, ২৭ জুন, ২০২০
  • ১০২ বার পড়া হয়েছে

ফরিদপুর জেলা বাস মালিক গ্রুপের সাধারন সদস্যরা শান্তিপূর্ন পরিবেশ ফিরে পেতে চায়।

মোঃসাদ্দাম হোসাইন সোহান স্টাফ রিপোর্টার দীর্ঘদিন ধরে ফরিদপুর জেলা বাস মালিক গ্রুপে চলছে পেশী শক্তির টানাপোড়েন। একটি  শক্তিশালী  সন্ত্রাসী চক্রের নিয়ন্ত্রনে ছিলো ফরিদপুর জেলা বাস মালিক গ্রুপের এই সেক্টরটি। বেশ কিছুদিন আগে এই চক্রের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগের প্রেক্ষিতে প্রশাসন অভিযান চালিয়ে তাদের বিভিন্ন অপকর্মের সত্যতা বের করে এবং আইনের আওতায় তাদের বিচার কার্যক্রম চলমান। এ ঘটনার পর থেকে সাধারন সদস্যরা আবার ফিরতে শুরু করে তাদের প্রিয় প্রতিষ্ঠান ফরিদপুর জেলা বাস মালিক গ্রুপে। জানাযায় এখনও সেই চক্র ফরিদপুর জেলা বাস মালিক গ্রুপে নিজেদের পেশী শক্তির কব্জায়  প্রতিষ্ঠানটি পরিচালনা করছে। এখন তাদেও ভয়ে সাধারন সদস্যরা স্বাভাবিক ভাবে সাংগঠনিক কোনো কাজ করতে পারছে না।  এ বিষয়ে বরাবর সভাপতি/ ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ,ফরিদপুর জেলা বাস মালিক গ্রুপ এ ফরিদপুর জেলা বাস মালিক গ্রুপের পাঁচবারের নির্বাচিত সাবেক সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান সিদ্দিকী কামরুল,স্বত্ত্বাধিকারী, সাদ সুপার ডিলাক্স পরিবহন, একটি আবেদন করেছেন । এবং সেই সাথে আবেদনের একটি কপি সদয় অবগতির জন্য প্রেরণ করেছে ১) পুলিশ সুপার মহোদয়, ফরিদপুর ও

২)অফিসার ইনচার্জ (ওসি), কোতয়ালী থানা, ফরিদপুরকে। আবেদনের বিষয়টি   হুবহু উল্লেখ করা যাচ্ছে।

বরাবর সভাপতি/ ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ,ফরিদপুর জেলা বাস মালিক গ্রুপ

বিষয়ঃ সাদ পরিবহনের আলফাডাঙ্গা-ঢাকা রুটে বরাদ্দকৃত সময়সূচী অনুযায়ী গাড়ি চলাচল প্রসঙ্গে।

জনাব,

যথাযথ সম্মান প্রদর্শনপূর্বক বিনীত নিবেদন এই যে, আমি নিম্ন স্বাক্ষরকারী ফরিদপুর জেলা বাস মালিক গ্রুপের পাঁচবারের নির্বাচিত সাবেক সাধারণ সম্পাদক। সর্বশেষ ২০১৪-১৬ মেয়াদে সাধারণ সম্পাদকের দ্বায়িত্ব থাকা অবস্থায় ফরিদপুরের কুখ্যাত সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজ, অবৈধ অস্ত্রধারী, ভূমিদস্যু, মাদক ব্যবসায়ী, টেন্ডারবাজ ও যুদ্ধাপরাধী মামলায় মৃত্যুদন্ডের সাজাপ্রাপ্ত পলাতক খোকন রাজাকারের ভাগ্নে সাজ্জাদ হোসেন বরকত তার সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে রাতের আঁধারে সাধারণ মালিকদের অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে আমাদের প্রাণের প্রিয় এই বাস মালিক গ্রুপকে অবৈধভাবে দখলের প্রক্রিয়া শুরু করে।

রাতের আঁধারে সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে বাস মালিক গ্রুপের সকল মালামাল ও সম্পদ গ্রুপের পূর্বোক্ত কার্যালয় হতে লুট করে। এরপর অস্ত্রের মুখে ভয়ভীতি দেখিয়ে, কমিটির অনেকের বিরুদ্ধে মিথ্যা হয়রানীমুলক মামলা দায়ের ও বারডেম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন গুরুতর অসুস্থ্য সভাপতি মহোদয়কে জিম্মি করে, বৈধভাবে নির্বাচিত কমিটির সদস্যদের মিথ্যা অজুহাতে অবৈধভাবে পদত্যাগে বাধ্য করে। এরপর ২০১৫ সালের ১১ মার্চ শহরের একটি হোটেলে তাদের নিজস্ব এজেন্ডা বাস্তবায়নের জন্য একটি সাধারণ সভা তলব করে। সভায় তারা পূর্বপরিকল্পিতভাবে সাধারণ সদস্যদের মাঝে ভীতির সঞ্চার করে একটি আহ্বায়ক কমিটি গঠন করে যার প্রধান হয় বরকত নিজেই।

দুর্র্ধষ সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজ বরকত চাঁদাবাজি ও প্রভাব প্রতিপত্তি সৃষ্টি করতে ব্যবসায়ীদের জিম্মি করে তার অবৈধ ক্ষমতা পাকাপোক্ত করার উদ্দেশ্যে জনমনে ত্রাস ও ভীতিকর পরিবেশ সৃষ্টি করে জেলা শহরের ঐতিহ্যবাহী বিভিন্ন সংগঠন ও প্রতিষ্ঠান অবৈধ দখলের প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে সে প্রথমেই জেলা বাস মালিক গ্রুপকে কব্জা করে। আমার সাথে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে বারবার পরাজিত হওয়া চক্রটিকে ব্যবহার করে বরকত তার এই হীন অবৈধ দখল প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে। তারা আমার বিরুদ্ধে তাদের মালিকানাধীন বিতর্কিত পত্রিকা ভোরের প্রত্যাশায় মিথ্যা ও ভিত্তিহীন সংবাদ প্রচার করে।

আমার মালিকানাধীন সাদ পরিবহনের আলফাডাঙ্গা-ঢাকা রুটের সকল ট্রিপ অন্যায়ভাবে জোরদখল করে নেয়। যে ব্যাপারে ফরিদপুরের সকল সাধারণ বাস মালিকগণ সহ জেলার সকল সচেতন নাগরিক অবগত রয়েছেন। সম্প্রতি পুলিশের সফল অভিযানে বরকত ও রুবেল গংকে গ্রেফতারের পর জেলা বাস মালিক গ্রুপ হতে এই জুলুমবাজ, সন্ত্রাস, চাঁদাবাজ ও অবৈধ দখলদারকে সভাপতি পদ হতে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে।

আমি মনে করি আমার বিরুদ্ধে এই জবরদখলকারীদের গৃহীত সকল অন্যায় জুলুমের অবসান হওয়া জরুরী।

জনাবের নিকট সদয় আবেদন, ঢাকা-আলফাডাঙ্গা রুটে সাদ পরিবহনের নামে ইতিপূর্বে বরাদ্দকৃত সময়সূচি অনুযায়ী ট্রিপ পুনরায় চালু করার জন্য সার্বিক সহযোগিতা কামনা করছি।

নাম না প্রকাশ করার শর্তে অনেক সদস্যই জানালেন ফরিদপুরের সুনামধণ্য  পুলিশ সুপার আমাদেও বিষয়ে অবগত আছেন। কিন্তু বরকত বাহিনীর তান্তবলীলা ফরিদপুর জেলার সাধারন মানুষকে ভীতসম্ভ্রম কওে ফেলেছে। এখনও এই বাহিনীর কব্জায় ফরিদপুর জেলা বাস মালিক গ্রুপ রয়েছে। প্রশাসনের কাছে অনুরোধ জনগনের জন্য পরিচালিত এই প্রতিষ্ঠান ফরিদপুর জেলা বাস মালিক গ্রুপটি সন্ত্রাসবাহিনীর থেকে মুক্ত করে দিন। তাহলে বাস ব্যবসায়ীরা শান্তিতে ব্যবসা করতে পারবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© All rights reserved © 2019 Breaking News
Theme Designed BY Kh Raad ( Frilix Group )