1. [email protected] : 71sangbad 71sangbad : 71sangbad 71sangbad
  2. [email protected] : Admin :
  3. [email protected] : alokito71sangbad alokito71sangbad : alokito71sangbad alokito71sangbad
  4. [email protected] : Daily Alokito : Daily Alokito
  5. [email protected] : Frilix Group : Frilix Group
  6. [email protected] : Gazi Saidur : Gazi Saidur
  7. [email protected] : shihab :
বুধবার, ২১ এপ্রিল ২০২১, ০৬:০১ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
গোদাগাড়ীর পৌর মেয়র মনিরুল ইসলাম বাবু আর নেই। পটুয়াখালীর গলাচিপায় প্রতিবন্ধী কিশোরী ধর্ষণে অভিযুক্ত ধর্ষক র‌্যাবের হাতে আটক! বরগুনার আমতলীতে কালবৈশাখী ঝড় ও গরম বাতাসে কৃষকের বোরো ধানের ক্ষতি! পত্নীতলায় ছিন্নমূল মানুষের সাথে পুলিশের ইফতার আমতলীতে জমি নিয়ে বিরোধে বৃদ্ধকে পিটিয়ে হত্যা কলারোয়ায় হ্যাকারের খপ্পরে বিকাশ এজেন্টের খোয়া গেল ৩৭হাজার ৮৯৯ টাকা এমপি আবু জাহিরের নির্দেশে আমার হবিগঞ্জ পত্রিকা অফিসে হামলা চালিয়েছে যুবলীগ ছাত্রলীগের সন্ত্রাসীরা লকডাউনে সহায়তা নয়,মুক্তভাবে পূর্বের কর্মস্থলে ফিরতে চায় রংপুরের শ্রমিকরা। আমিনপুর থানায় পুলিশের অভিযানে গ্রেফতার ১০ দ্বিতীয় টিকা নিলেন ওসি মুহাম্মদ শাহজাহান কামাল

বিজ্ঞাপন

নীলফামারীর ডোমার থানা পুলিশের সহযোগীতায় দুই বছরের শিশু আলিফ মায়ের কোল ফিরে পেল।

Reporter Name
  • প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ২১ জুলাই, ২০২০
  • ১৯১ বার পড়া হয়েছে

নুরনবী শাহ-নীলফামারী প্রতিনিধিঃ

নীলফামারীর ডোমার থানা পুলিশের সহযোগীতায় দুই বছরের শিশু আলিফ মায়ের কোল ফিরে পেল। বুকের ধন সন্তানকে নিজের কাছে পেয়ে মা ছাবিনা ইয়াসমিন বেজায় খুশি।

আর কিছুই চাওয়ার নাই ছাবিনার। পাঁচ দিন দুরে থাকার পর নীলফামারীর ডোমার উপজেলার গোমনাতী চৌরঙ্গী এলাকা হতে শিশুটিকে উদ্ধার করে তার মায়ের কোলে ফিরেয়ে দেয় ডোমার থানা পুলিশ।

জানা যায়, গত নয় বছর আগে দেবীগজ্ঞ উপজেলার সোনাহার পশ্চিম মুন্সিপাড়া এলাকার ছাবিনা ইয়াসমিন ও ডোমার উপজেলার গোমনাতী চৌরঙ্গী এলাকার রবিউল ইসলাম ঢাকার একটি গার্মেন্টস ফ্যাক্টরীতে এক সাথে কাজ করার সুবাদে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে। প্রেমের ছয় মাস পার না হতেই তারা বিয়ের বন্ধনে আবদ্ধ হয়।

এরমধ্যে তাদের সংসারে রোজিনা (৭) ও আলিফ (২) নামে দু’টি সন্তান হয়। নয় বছরের সংসারে ছাবিনা বুঝতে পারে রবিউলকে বিয়ে করে সে নিজের কপাল পুড়িয়েছে। রবিউলের গ্রামের বাড়িতে স্ত্রী ও সন্তান রয়েছে। ছাবিনার প্রতি মাসের বেতনের টাকাও মারধর করে কেড়ে নিয়ে রবিউল মাদক সেবন করে। এভাবেই তাদের সংসারে তিক্ততা বাড়তে থাকে।

এরই এক পর্যায়ে গত ১০ জুলাই ছাবিনা কাজে বের হলে, রবিউল মেয়ে রোজিনাকে রেখে, ছোট ছেলে আলিফ ও ঘরের সকল আসবাবপত্র নিয়ে একটি পিক-আপযোগে গ্রামের বাড়িতে চলে আসে। ছাবিনা বাড়িতে ফিরে দেখে ঘরের ভিতরে কোন আসবাবপত্র নাই। মেয়ে রোজিনা কান্না করছে, ছেলে আলিফ কোথাও নাই।

মেয়েকে ছাবিনা জিজ্ঞাসা করলে সব জানতে পারে। ছাবিনা স্বামী রবিউলকে বার বার ফোন করেও কোন সাড়া পায় না। এতে রোজিনা দ্রুত মেয়েকে নিয়ে বাবার বাড়ি সোনাহার চলে আসে। ১৫ জুলাই বুধবার বাবা-মাকে নিয়ে ছাবিনা শ্বশুর বাড়িতে গিয়ে ছেলেকে ফেরত চায়।

কিন্তু রবিউল ছেলেকে ফেরত না দিয়ে ছাবিনা ও তার বাবা-মাকে হুমকি দিয়ে বাড়ি থেকে বের করে দেয়। এতে ছাবিনা নিরুপায় হয়ে ডোমার থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করে। ডোমার থানার অফিসার ইনচার্জ মোস্তাফিজার রহমান অভিযোগ পাওয়ার সাথে সাথে রবিউলের বাড়ি গিয়ে আলিফকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

এরপর ওই দিনে রাত ১০ টার দিকে ডোমার থানায় পুলিশ ছাবিনার কোলে ছেলে আলিফকে ফিরিয়ে দেয়। সেখানে মা-ছেলের আবেগঘন মুহুর্ত দেখে উপস্থিত সকলের চোখে পানি চলে আসে। সাত রাজার ধন, বুকের মানিক ছেলেকে পেয়ে পুলিশকে ধন্যবাদ জানায় মা ছাবিনা।

ডোমার থানার অফিসার ইনচার্জ মোস্তাফিজার রহমান জানান, মায়ের কোল থেকে দুই বছরের সন্তানকে কেড়ে নেওয়ার কথা শুনে খুব খারাপ লেগেছিল আম

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© All rights reserved © 2019 Breaking News
Theme Designed BY Kh Raad ( Frilix Group )