1. [email protected] : 71sangbad 71sangbad : 71sangbad 71sangbad
  2. [email protected] : Admin :
  3. [email protected] : alokito71sangbad alokito71sangbad : alokito71sangbad alokito71sangbad
  4. [email protected] : Daily Alokito : Daily Alokito
  5. [email protected] : Frilix Group : Frilix Group
  6. [email protected] : Gazi Saidur : Gazi Saidur
  7. [email protected] : shihab :
শুক্রবার, ২৩ এপ্রিল ২০২১, ০৯:০১ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
সরাইলে তুচ্ছ ঘঠনা কেন্দ্র করে চাচাতো ভাইয়ের ছুরিকাঘাতে ভাই খুন। বরগুনার আমতলীতে ডায়েরিয়া পরিস্থিতি ভয়াবহ, স্যালাইন সংকট কুমারখালী থানার অফিসার ইনচার্জ মজিবুর রহমানের যোগদানের এক বছর!! মুন্সীগঞ্জে লকডাউনে বাড়ী ও দোকান ভাড়া মওকুফ করতে মালিকদের প্রতি আহবান ভাড়াটিয়াদের মৌলভীবাজারে চার লক্ষ টাকা ছিনতাই অভিনয় কারি রিপন দেবনাথ। রাজশাহীর পুঠিয়ায় এমপি মনসুরের পক্ষ থেকে রাজশাহী জেলা ছাত্রলীগ নেতা শান্তর মাস্ক বিতরণ। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার আধুনিক বাসভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন সুজানগরে মাহে রমজানে টিসিবি’র ভ্রাম্যমাণ পণ্য বিক্রয়ের উদ্বোধন করেন- শাহীনুজ্জামান এম মনিরুজ্জামান,পাবনা: পাবনায় ৩৯০ বোতল ফেনসিডিল ও প্রাইভেটকার সহ ২ জন আটক রতন সরকারকে হত্যাচেষ্টাকারীদের গ্রেুপ্তারে ২৪ ঘন্টার আল্টিমেটাম

বিজ্ঞাপন

চুয়াডাঙ্গার দর্শনা থানার পুলিশের উদ্ধারকৃত মাদকদ্রব্য গায়েব

Reporter Name
  • প্রকাশিত: শুক্রবার, ১৪ আগস্ট, ২০২০
  • ২১৮ বার পড়া হয়েছে

স্টাফ রিপোর্টারঃ

দর্শনা থানা পুলিশের বিরুদ্ধে উদ্ধারকৃত মাদকদ্রব্য গায়েব করার অভিযোগ

মাদক নির্মূলের নামে চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার দর্শনা থানা পুলিশের বিরুদ্ধে উদ্ধারকৃত মাদকদ্রব্যের বেশীরভাগই গায়েব করার অভিযোগ উঠেছে। ঘটনাটি ঘটেছে গত মঙ্গলবার  সকালের দিকে।

জানা যায়, গত মঙ্গলবার(১১ই আগস্ট) সকালের দিকে দর্শনা থানার ওসি মাহাব্বুর রহমানের নেতৃত্বে থানার বিতর্কিত এএসআই মহিউদ্দিনসহ পুলিশের একটি টিম দামুড়হুদা উপজেলার দর্শনা থানাধীন পারকৃঞ্চপুর-মদনা ইউনিয়নের সীমান্তবর্তী সুলতানপুর গ্রামে মাদকবিরোধী অভিযান পরিচালনা করে।

 

এ সময় সুলতানপুর মসজিদপাড়ার আব্দুস সাত্তারের ছেলে আশরাফুল হকের কাঠের আড়তের তালা ভেঙে ভেতরে ঢুকে সেখান থেকে কাঠের তৈরী একটি মিনার জব্দ করে পুলিশ।  পরবর্তীতে মিনারটি মৃত সামছদ্দিন ওরফে সামুর ছেলে আজিম উদ্দিনের বাড়ির মধ্যে নিয়ে যেয়ে মিনারটি ভেঙে তার মধ্য থেকে উদ্ধার করা হয় ৫ (পাঁচ) কেজি মাদকদ্রব্য গাঁজা।

 

এরপর পুলিশ একই এলাকার মৃত আনছার আলীর ছেলে আনোয়ারের বাড়ির ছাদের খড়ির গাদা থেকে কয়েক পুটলা গাঁজা উদ্ধার করে যার প্রত্যেক পুটলায় ১ কেজি করে গাঁজা ছিলো বলে স্থানীয়রা জানায়। সেখান থেকে গ্রেফতার করা হয় আনোয়ারকে। পরবর্তীতে একই এলাকার উঠতি পাড়ার লিয়াকত আলীর ছেলে মহির ও দিন মোহাম্মদের ছেলে হাকিমকে গাঁজা সহ গ্রেফতার করে। তাদের কাছ থেকে কয়েক পুটলা গাঁজা উদ্ধার করা হয়। সবমিলিয়ে ওইদিন মঙ্গলবার আনুমানিক ১২ কেজি গাঁজা উদ্ধার করা হলেও জব্দ তালিকায় ২ কেজি গাঁজা উদ্ধারের কথা উল্লেখ করা হয়েছে। আর মোটা অঙ্কের টাকার বিনিময়ে গাঁজাসহ আটককৃত মাদক ব্যবসায়ী আনোয়ারকে ছেড়ে দিয়েছে দর্শনা থানা পুলিশ। অপর দুই আসামিকে ২ কেজিসহ গ্রেফতার দেখানো হয়।

 

বিষয়টি এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে। এছাড়া উদ্ধারকৃত গাঁজার বেশীরভাগই হাত বদল হয়ে চলে গিয়েছে পুলিশের সোর্স নামধারী এলাকার বহু অপকর্মের হোতা বিতর্কিত ব্যক্তি মুনছুর আলী ও তার ছেলে রমজানের দখলে।

 

মাদক নির্মূলের নামে দর্শনা থানা পুলিশের এ ধরনের কাজকে ঘৃণার চোখে দেখছে স্থানীয় সুধীসমাজ। নাম প্রকাশ না করার শর্তে অনেকেই বলেছেন মাদক নির্মূল করতে যেয়ে তারাই যদি মাদকদ্রব্য হজম করে ফেলে তাহলে দর্শনা থানা এলাকা কোনদিনই মাদকমুক্ত হবেনা। তাছাড়া মাদক উদ্ধার করে পুলিশ যদি মাদক ব্যবসায়ীদের কাছেই সেসব মাদকদ্রব্য বিক্রি করে তাহলে তারা তো আরও সাহস পেয়ে যাবে,মাদক নির্মূল করাতো দূরের কথা,তাদের কে আরো উৎসাহ দিচ্ছি প্রশাসন। এ ব্যাপারে দর্শনা থানার ওসির সাথে ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হয় কিন্তু ওসি ফোন রিসিভ করে নাই।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© All rights reserved © 2019 Breaking News
Theme Designed BY Kh Raad ( Frilix Group )